ইশান এগ্রো লিঃ এর ম্যানেজর অপহরণ ৪৫লাখ টাকা মুক্তিপণের অভিযোগে তিন নারী গ্রেফতার

দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার আমবাড়ী এলাকার ইশান এগ্রো লিমিটেড এর ম্যানেজারকে অপহরণ করে ৪৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ চাওয়ার অভিযোগে ১৯ মে বুধবার বিকেলে দিনাজপুর শহরের পাহাড়পুর এলাকা থেকে তিন নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। এসময় ইশান এগ্রো লিমিটেড এর ম্যানেজার ভিকটিম মোঃ আশরাফুল ইসলাম (৪৬)-কে উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত নারীরা হলেন-দিনাজপুরের বিরল উপজেলার দোগাছি গ্রামের জয়নুল ইসলামের মেয়ে জিনাত রেহেনা (২৫) ও মৃত ফজলুল হকের মেয়ে মোছাঃ নুর বানু (৪৫) এবং একই উপজেলার পলাশবাড়ী গ্রামের মেহেরুল ইসলামের স্ত্রী রশিদা খাতুন (৫০)। পুলিশ সূত্র জানায়, চিরিরবন্দর উপজেলার ১০ নং পুনট্টি ইউনিয়নের পাটুল গ্রামের মৃত ফজলুর রহমানের পুত্র মোঃ আশরাফুল ইসলাম আমবাড়ী উচিতপুর এালাকার ইশান এগ্রো লিমিটেডে ম্যানেজার পদে চাকরি করেন। গত ১৮ মে কারখানা থেকে দিনাজপুর শহরের ফুলবাড়ী বাসস্ট্যান্ড যাওয়ার পথে তিনি নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় আশরাফুল ইসলামের ভায়রা ভাই হাসান বাবু ওইদিন রাতে কোতোয়ালি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। মঙ্গলবার সকাল থেকে অপহরণকারীরা পুলহাট এলাকার ব্রান্ড ব্যাবসায়ী জহির উদ্দিনকে ভিকটিমের মোবাইল ফোন ব্যবহার করে কয়েকবার ফোন করে ৪৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। পরে তিনি এবং কারখানার মালিক ইসতিয়াক আহম্মেদ বিষয়টি দিনাজপুর সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায়কে জানান। সিআইডি বিশেষ পদ্ধতিতে তাদের অবস্থান শনাক্ত করে ভিকটিমকে উদ্ধারসহ আসামিদের গ্রেফতার করে। সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় তিন নারী গ্রেফতার হলেও শহরের রামনগর এলাকার মোতালেব (৩৫) ও শহিদুল্লাহ (৩০) পলাতক রয়েছেন। তাদের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে

সর্বশেষ সংবাদ