ইয়েমেনে যুদ্ধ করতে রাজি না হওয়ায় ৩ সৌদি সেনার মৃত্যুদণ্ড

সম্প্রতি ইয়েমেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে রাজি না হওয়ায় রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ এনে সৌদি আরবের অন্তত তিন সেনাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সৌদি লিকস নামে গোপন তথ্য ফাঁসকারী একটি ওয়েবসাইট এ খবর দিয়েছে।

সৌদি লিকসের মতে, এসব সেনা ইয়েমেনের বিরুদ্ধে ক্লান্তিকর ও অর্থহীন যুদ্ধ করতে রাজি নয়। দীর্ঘ ছয় বছরের যুদ্ধে বহু সেনা হতাশ হয়ে পড়েছে এবং তাদের অনেকেই এখন মনোবল হারিয়েছে।

২০১৫ সালের মার্চ মাসে যখন সৌদি আরব দারিদ্রপীড়িত ইয়েমেনে সামরিক আগ্রাসন চালায় তখন দেশটির সেনাপ্রধান বিপুল পরিমাণ আধুনিক অস্ত্রের জোরে সৌদি সরকারকে এই ধারণা দিয়েছিলেন যে, দারিদ্রপীড়িত ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ যোদ্ধাদের সহজেই পরাজিত করা যাবে। কিন্তু গত ছয় বছরে বিমান হামলা চালিয়ে ইয়েমেনে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালালেও স্থলযুদ্ধে হুথি যোদ্ধা ও ইয়েমেনি সেনাদের সামনে টিকতে পারছে না সৌদি সেনারা। পাশাপাশি দিন দিন যুদ্ধপরিস্থিতি হুথিদের অনুকূলে চলে যাচ্ছে।

এ অবস্থায় সৌদি সেনাদের মধ্যে ক্লান্তি ও হতাশা ভর করেছে। ফলে সৌদি আরবকে এখন দুই প্রতিকূল পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হচ্ছে। একদিকে হুথিদের অগ্রাভিযান অন্যদিকে অর্থহীন যুদ্ধে সেনাদের মনোবল ভেঙে পড়া। যুদ্ধ করতে রাজি না হওয়া সেনাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হলেও তাতে যুদ্ধক্ষেত্রে বাকি সেনাদের মনোবল চাঙ্গা করতে ভূমিকা রাখছে না বরং পক্ষত্যাগী সেনার সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে।

সর্বশেষ সংবাদ