টঙ্গীতে কথিত বন্ধুকযুদ্ধে একজন নিহত

গাজীপুরের টঙ্গীতে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্ধুকযুদ্ধে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ১১টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গী সেতু এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ওই ব্যক্তি মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত বলে র‌্যাবের দাবি করেছে। তবে তাৎক্ষণিক তার নাম-ঠিকানা জানা যায়নি।

র‌্যাব-১ এর সহকারী পুলিশ সুপার মো. মুশফিকুর রহমান তুষার জানান, প্রতিদিনের মতো সোমবার রাতেও টঙ্গী ও আবদুল্লাহপুর এলাকায় অবস্থান করছিল তাদের একটি টহল টিম। এর মাঝে রাত ১১টার দিকে হঠাৎ তাদের কাছে খবর আসে টঙ্গী সেতুর পাশে (টঙ্গী সড়ক ভবনের সামনে) মাদক কেনাবেচা করছেন কয়েক ব্যক্তি। এ সময় দ্রুত টহল দল সেখানে গেলে তাদের উদ্দেশ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি করতে থাকে মাদক ব্যবসায়ীরা।

তিনি আরও জানান, র‌্যাবকে উদ্দেশ্য করে গুলি ছোড়াতেই র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এ সময় অন্যরা পালিয়ে গেলেও ওই ব্যক্তি পালাতে পারেনি। পরে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। নিহতের কাছে একটি বিদেশি পিস্তল, দুই রাউন্ড গুলি, একটি ম্যাগজিন ও তিন প্যাকেট ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া গেছে।

ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহ আলম। তিনি জানান, গোলাগুলির ঘটনায় র‌্যাবের দুই সদস্যও আহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।