আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্য প্রত্যাহার : অর্ধেকের বেশি সম্পন্ন

যুক্তরাষ্ট্রের  সামরিক বাহিনীর হিসেব অনুযায়ী তারা আফগানিস্তান থেকে তাদের সৈন্য প্রত্যাহারের অর্ধেকেরও বেশি সম্পন্ন করেছে। এই গতিতে সৈন্য প্রত্যাহারের কাজ চললে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নির্ধারিত সময় সীমা ১১ই সেপ্টম্বরের আগেই সব সৈন্য প্রতাহার সম্পন্ন হয়ে যাবে। যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় কমান্ড বা সেন্টকম যারা আফগানিস্তানে এই অভিযানের তত্বাবধানে রয়েছে মঙ্গলবার জানায়, “সেন্টকমের হিসেব মত আমরা সামগ্রিক ভাবে এই প্রত্যাহার প্রক্রিয়ার ৫০% ‘র  বেশি সম্পন্ন করেছি। সেন্টকম আরও বলেছে যে তারা প্রায় ৫০০ টি সি-সেভেনটিন বিমান ভর্তি জিনিষপত্র আফগানিস্তান থেকে সরিয়ে নিয়েছে এবং ১৩,০০০ ‘এরও বেশি সাজসরঞ্জাম পরিত্যাগের  জন্য প্রতিরক্ষা লজিটিক্স দপ্তরকে  দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর হিসেব অনুযায়ী তারা আফগানিস্তান থেকে তাদের সৈন্য প্রত্যাহারের অর্ধেকেরও বেশি সম্পন্ন করেছে। এই গতিতে সৈন্য প্রত্যাহারের কাজ চললে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নির্ধারিত সময় সীমা ১১ই সেপ্টম্বরের আগেই সব সৈন্য প্রতাহার সম্পন্ন হয়ে যাবে। যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় কমান্ড বা সেন্টকম যারা আফগানিস্তানে এই অভিযানের তত্বাবধানে রয়েছে মঙ্গলবার জানায়, “সেন্টকমের হিসেব মত আমরা সামগ্রিক ভাবে এই প্রত্যাহার প্রক্রিয়ার ৫০% ‘র বেশি সম্পন্ন করেছি। সেন্টকম আরও বলেছে যে তারা প্রায় ৫০০ টি সি-সেভেনটিন বিমান ভর্তি জিনিষপত্র আফগানিস্তান থেকে সরিয়ে নিয়েছে এবং ১৩,০০০ ‘এরও বেশি সাজসরঞ্জাম পরিত্যাগের জন্য প্রতিরক্ষা লজিটিক্স দপ্তরকে দিয়েছে।

ঐ যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশে প্রায় ২০ বছর ধরে সামরিক ভাবে সম্পৃক্ত থাকার পর বাইডেন আমেরিকান সৈন্যদের ১১ ই সেপ্টেম্বরের মধ্যে আফগানিস্তান ত্যাগের নির্দেশ দেন। এপ্রিল মাসে এই ঘোষণা দেয়ার সময়ে নেটোর আফগানিস্তান মিশনে ১০,০০০ সৈন্যের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের অন্তত ২,৫০০ সৈন্য ছিল। সোমবার নেটোর মহাসচিব জেন্স স্টলটেনবার্গ, আটলান্টিক কাউন্সিলের একটি অনুষ্ঠানে স্বীকার করেন যে আফগানিস্তান ত্যাগ করার সিদ্ধান্ত ঝুঁকিবহুল তবে বলেন নেটোর প্রস্তুত ও প্রশিক্ষিত আফগান নিরাপত্তা বাহিনী নিজেদের দেশের সুরক্ষার দায়িত্ব গ্রহণ করবে।

সর্বশেষ সংবাদ