ছাগলকান্ডের পর বগুড়ার সেই ইউএনও বদলি

স্টাফ রিপোর্টার:বগুড়ার আদমদীঘিতে ছাগল-কান্ডের পর সেই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সীমা শারমিনকে বদলি জাতীয় স্থানীয় সরকার প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউটে (এনআইএলজি) উপ-পরিচালক হিসেবে বদলী করা হয়েছে। ৮ জুন উপসচিব মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারীর মাধ্যমে বিষয়টি জানানো হয়।ইউএনও সীমা শারমিনকে স্থানীয় সরকার বিভাগে বদলির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক।জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক জানান, আদমদীঘির ইউএনও সীমা শারমিনকে স্থানীয় সরকার বিভাগে বদলি করা হয়েছে। এটি নিয়মিত বদলি বলেও জানান তিনি।আদমদীঘি উপজেলা পরিষদ চত্বরে নির্মানাধীন পার্কে স্থানীয় বাসিন্দা সাহারা বেগমের একটি ছাগল কয়েকদফা ফুলগাছ নষ্ট করে। ১৭ মে আবারো ছাগলটি ফুলগাছগুলো নষ্ট করলে নিরাপত্তা প্রহরীরা ছাগলটি আটক করে। ২২ মে ছাগলমালিক সাহারা বেগমকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে অর্থদন্ড দেয়া হয়। তবে সাহারা বেগম অর্থদন্ডের টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ছাগলটি স্থানীয় একজনের জিম্মায় রাখেন ইউএনও।১০ দিন পর উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম খান রাজু নিজে অর্থদন্ডের টাকা পরিশোধ করে সাহারা বেগমের ছাগল ফিরিয়ে দেন। ছাগল ফিরিয়ে দেয়ার ১২ দিন পর বদলির আদেশ পেলেন ইউএনও সীমা শারমিন।