নওগাঁ রাণীনগরে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকীতে সেলাই মেশিন উপহার পেলো দু:স্থ্য নারীরা

মোঃ সজীব হাসান  (নওগাঁ) প্রতিনিধি : “বঙ্গমাতা সংকটে সংগ্রামে নির্ভীক  সহযাত্রী” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সারা দেশের ন্যায় নওগাঁর রাণীনগরে নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব এঁর ৯১তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। দিনটি উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সেলাই মেশিন বিতরনসহ উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর নানা কর্মসূচির আয়োজন করে। কর্মসূচির প্রথমেই উপজেলা অডিটোরিয়ামে বঙ্গমাতা প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন করা হয়। এরপর গনভবন থেকে সরাসরি সম্প্রচারিত প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালী যোগদান করা হয়। প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠান শেষে উপজেলার ৭জন দু:স্থ্য নারীদের মাঝে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার সেলাই মেশিন ও ২জন নারীকে ২হাজার টাকা মোবাইলের মাধ্যমে প্রদান করা হয়। রবিবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুশান্ত কুমার মাহাতোর সভাপতিত্বে ও কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ শহীদুল ইসলামের সঞ্চালনায়
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের সাংসদ আলহাজ্ব মো: আনোয়ার হোসেন হেলাল।
এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জার্জিস হাসান মিঠু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফরিদা বেগম, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা শিল্পী রায়, প্রকল্প কর্মকর্তা মেহেদী হাসান, যুব কর্মকর্তা আশিষ কুমার
ঘোষ, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহিনা আকতার, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহিন আকন্দ, পরিষদের অন্যান্য কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিরা।
সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি সাংসদ হেলাল বলেন বাংলাদেশ
প্রতিষ্ঠা সংগ্রামের প্রতিটি ধাপে বঙ্গমাতা শুধুমাত্র জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনী হিসেবে নয়, একজন নীরব দক্ষ সংগঠক হিসেবে তিনি নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছেন। বঙ্গমাতা বাঙ্গালীর মুক্তি সংগ্রামে ভূমিকা রেখেছেন এবং বঙ্গবন্ধুকে হিমালয় সমপর্যায়ে অধিষ্ঠিত করেছেন। বঙ্গবন্ধু, বাঙ্গালী ও বাংলাদেশ যেমন একইসূত্রে গাঁথা,
তেমনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিবও পরস্পর অবিচ্ছেদ্য নাম।