ফুলবাড়ি সীমান্তে পাঁচ বাংলাদেশিকে আটক করে বিজিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে

সাইফুর রহমান শামীম, কুড়িগ্রাম: 06.08.2021 কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সীমান্তে নোমানস ল্যান্ড থেকে বিএসএফ ৫ জন বাংলাদেশি নারী ও শিশুকে আটক করে যখন তারা ভারতে ইটের ভাটায় কাজ করে বাড়ি ফিরছিল। পরে তারা পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে আটককৃতদের বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) কাছে হস্তান্তর করে। পাসপোর্ট ছাড়া দেশে প্রবেশের জন্য আটক তিনজনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দিয়েছে বিজিবি। দুই শিশুকে তাদের বাবা -মায়ের হেফাজতে রেখে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ রোববার আটক তিনজনকে কারাগারে পাঠায়। আটকরা হলেন, দাসিয়ারছড়ার কামালপুর গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে আবুল কালাম (২৫), তার স্ত্রী শাহনাজ বেগম (২২) এবং তার ছেলে শাহজালাল (05), জাকরহাট আমতলা গ্রামের ওমেদ আলীর স্ত্রী নুরজাহান বেগম (35) একই উপজেলা এবং তার ছেলে নূর ইসাম ()৫)। 06)। আটক ব্যক্তির এক আত্মীয় বেলাল হোসেন জানান, তারা দালালদের মাধ্যমে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতের দিল্লিতে ইট ভাটার কাজে জড়িয়ে পড়ে। দীর্ঘদিন সেখানে কাজ করার পর তিনি দালালদের মাধ্যমে দেশে ফেরার জন্য কয়েকদিন সীমান্তে অবস্থান করছিলেন। পার হওয়ার সুযোগ না পাওয়ায় ভারতীয় ধাপ্রহাট ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা তাদের আটক করে। কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার কাশিপুর সীমান্তে 942 নম্বর প্রধান স্তম্ভের কাছে শনিবার বিকেল 5 টার দিকে পতাকা উড়ানো হয়। সভা হল। বৈঠকে ধাপ্রহাট ১ 192২ ব্যাটালিয়নের বিএসএফ পরিদর্শক বিবাক মিলা ৫ জন বাংলাদেশীকে লালমনিরহাট ১৫ বিজিবি কাশিপুর ক্যাম্প কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার রমজান আলীর কাছে হস্তান্তর করেন। ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজিব কুমার রায় বলেন, পাঁচজনের মধ্যে দুইজনকে তাদের বাবা-মা হেফাজতে রেখেছেন। বাকি তিনজনকে রবিবার কুড়িগ্রাম আদালতে পাঠানো হয়েছে।