ফাইজারের আরও ১০ লাখ টিকা আসছে সন্ধ্যায়

যুক্তরাষ্ট্রের উপহার কোভ্যাক্স ফ্যাসিলিটিজের আওতায় ফাইজারের আরও ১০ লাখ টিকা আজ বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় দেশে আসছে।

কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইট সন্ধ্যায় টিকাগুলো নিয়ে ঢাকার হযরত শাহজালাল (রাহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করার কথা রয়েছে।
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) যুক্তরাষ্ট্র থেকে উপহারের ১০ লাখ ডোজ ফাইজারের টিকা আসবে। টিকাগুলো সন্ধ্যার দিকে ঢাকায় পৌঁছাবে।
এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ও বাংলাদেশে নিযুক্ত আমেরিকার রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার বিমানবন্দরে উপস্থিত থেকে টিকাগুলো গ্রহণ করবেন।
যুক্তরাষ্ট্রের উপহারের এ ১০ লাখ ডোজ ফাইজারের টিকা সোমবার (৩০ আগস্ট) সন্ধ্যায় আসার কথা ছিল। কিন্তু ওই দিন দুপুরে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়, টিকা আসার সময় পরিবর্তন হয়েছে। ফাইজারের টিকার এ চালান আসবে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর)।
এটি যুক্তরাষ্ট্র থেকে বাংলাদেশের জন্য পাঠানো ফাইজারের দ্বিতীয় চালান। এর আগে, গত ৩১ মে প্রথম এক লাখ ৬২০ ডোজ টিকা দেশে আসে।

গত ২৩ আগস্ট মন্ত্রিসভার বেঠক শেষে সেপ্টেম্বরেই আমেরিকা থেকে আরও ৬০ লাখ ডোজ ফাইজার ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।
সেই ৬০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিনের অংশ হিসেবে সন্ধ্যায় এ ১০ লাখ ডোজ দেশে আসছে। পরবর্তীতে ক্রমান্বয়ে আরও ৫০ লাখ ডোজ ফাইজারের ভ্যাকসিন সেপ্টেম্বরের মধ্যেই দেশে পৌঁছবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।
গতকাল মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, আগামী মাসে দুই কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হবে। করোনাকালীন সময়ে আমরা চেষ্টা করছি, দেশের মানুষকে কীভাবে ভালো রাখা যায়।
বর্তমানে করোনায় মৃত্যু ও সংক্রমণের হার কমে গেছে। আমাদের দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রয়েছে। অনেক দেশের তুলনায় আমরা ভালো আছি। এই ভালো রাখার জন্য সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। করোনাকে কোনোভাবেই অবহেলা করা যাবে না।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ১৫ আগস্ট ও ২১ আগস্ট একই সূত্রে গাঁথা। স্বাধীনতা বিরোধীরা ষড়যন্ত্র করে জাতির পিতাকে হত্যা করেছে। সেই ষড়যন্ত্র এখনও শেষ হয়ে যায়নি। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা করে শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল।

দেশ নিয়ে এখনও ষড়যন্ত্র হচ্ছে, হেফাজতের মাধ্যমে সরকার হঠানো চেষ্টা করা হয়েছিল। বিএনপি জামাত, হেফাজতের নেতাকর্মীরা দলের মধ্যে ঢুকে যাতে ষড়যন্ত্র করতে না পারে সেই দিকে নেতাকর্মীদের সর্তক থাকতে হবে।