গুড়া সদর উপজেলার নিশিন্দারায় বারপুর ও চাঁদপুরে ককটেল বিস্ফোরণ

স্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়া সদর উপজেলার নিশিন্দারা ইউনিয়নে গভীর রাতে ককটেল বিস্ফোরণ এর ঘটনা ঘটেছে। এতে কেউ এখন পর্যন্ত হতাহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি এবং তেমন কোন ক্ষয়ক্ষতিও হয়নি। এই ঘটনায় এলাকাতে বর্তমানে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
পুলিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসীর সুত্রে জানা যায়, আসন্ন ২৮ নভেম্বর রবিবার নিশিন্দারা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। এই নির্বাচনকে সামনে রেখে আজ বুধবার (২৪-১১-২১) দিবাগত রাত্রি আনুমানিক সাড়ে ১২টার সময় কতিপয় দূর্বৃত্তরা পুর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী ও নৌকার মাঝি রিজু হোসাইন এর চাঁদপুরস্থ বাড়ি ও বারপুর পাঁচবাড়িয়াস্থ নির্বাচনী অফিসে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এসময় তার বাড়িতে পরপর ২ বার বিকট শব্দে ককটেল বিস্ফোরিত হলে স্থানীয়রা কিছুক্ষন পর বাড়ি থেকে বের হয়ে ঘটনাস্থলে এসে একটি লাল টেপ ফিতা দিয়ে মোড়ানো অবিস্ফোরিত ককটেল দেখতে পায়।
তখন বিষয়টি সদর থানা পুলিশকে অবগত করলে, সদর থানার ওসি (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ ও ওসি (অপারেশন) মোঃ শাহিনুজ্জামান সহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। অবিস্ফোরিত ককটেলটি পানি ভর্তি বালতিতে রেখে পরে নিষ্কিয় করা হয়। এই ঘটনার পরপরই এলাকার শ”শ জনতা ও স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা ঘটনাস্থলে এসে উক্ত ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি দুষ্কৃতিকারীদের দ্রুত চিহ্নিত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণে দাবী জানায়।
এব্যাপারে নিশিন্দারা ইউনিয়নের আওয়ামিলীগ সমর্থিত প্রার্থী ও নৌকার মাঝি, নিশিন্দারা ইউনিয়ন যুবলীগ এর সাধারণ সম্পাদক রিজু হোসাইন জানান,” আমার বাড়ির যেখানে ককটেল বিস্ফোরণ হয়েছে অই বরাবর আমার ঘর। আমাকে হত্যা করার উদ্দ্যেশ্যে এবং আমি যেন নির্বাচন না করি সেজন্যেই এই ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটানো হয়েছে”। আওয়ামিলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন মুকুল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উপস্থিত নেতাকর্মীদের শান্ত থাকার পরামর্শ প্রদান করেন। তিনি বলেন,” নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত জেনেই এই ককটেল হামলা ঘটানো হয়েছে”।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, চেয়ারম্যানপ্রার্থী রিজুর বাড়িতে ৩ টি ককটেল নিক্ষেপ করা হয়। ২টি ককটেল বিস্ফোরিত হলেও ১টি ককটেল পরিত্যক্ত পাওয়া যায়। যা পরবর্তীতে পুলিশের একটি টিম এসে নিস্ক্রিয় করে আলামত হিসাবে জব্দ করে। এদিকে রিজুর নির্বাচনী অফিস বারপুর পাঁচবাড়িয়ায় এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (সকাল ৯টা) লাল টেপে মোড়ানো ১টি ককটেল অবিস্ফোরিত অবস্থায় আছে। এই ঘটনায় ইউনিয়নবাসীর মধ্য ব্যাপক ভীতির সঞ্চার করেছে।