আমরা চাই ফেয়ার নির্বাচন জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু

স্টাফ রিপোর্টার-জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবং শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ মুজিবুল হক চুন্নু এমপি বলেছেন, জাতীয় পার্টি আগামী নির্বাচনে যাতে ৩শ’ আসনে প্রার্থী দিতে পারে সেই লক্ষে কাজ করবো। আমরা জানি বাংলাদেশের মানুষ ভালো নেই। আওয়ামীলীগের দুঃশাসনের কারণে, দূর্নীতির কারণে আওয়ামীলীগের অবস্থাটা এমন হয়েছে যে, জোর করে ভোট নিবে এটাও তাদের আর ভালো লাগেনা। তারা ভোটে জোর করে সীল মেরে নিবে এটাও পছন্দ না। তারা চায় নির্বাচনে কেউ থাকবে না। বিনা প্রতিদন্দীতায় নির্বাচিত হবে। এ কালচার মোটেই ভাল না। প্রধানমন্ত্রী দৃষ্টি আকর্ষন করে তিনি বলেন, এই কালচার ভালো না। এই কালচারের কারণে বিএনপি নির্বাচনে আসেনি। যদি এমনিভাবে চলে, আগামী দিনে জাতীয় পার্টি নির্বাচনে যাবে কিনা সে বিষয়টা সিদ্ধান্ত নিবে। আমরা চাই ফেয়ার নির্বাচন।
গতকাল শুক্রবার রংপুর মহানগরীর দর্শনাস্থ পল্লী নিবাসে জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি পল্লীবন্ধ হুসেইম মুহম্মদ এরশাদের সমাধিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন, জিয়ারত ও মোনাজাত শেষে সাংবাদিকদের এ সব কথা বলেন তিনি।
তিনি বলেন দেশ স্বাধীন হয়েছে ৫০ বছর। এই ৫০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্ষমতার বাহিরে জাতীয় পার্টি। আওয়ামীলীগ ২০ বছর ক্ষমতায়, বিএনপি ১২ বছর ক্ষমতায়, জাতীয় পার্টি মাত্র ৪বছর ক্ষমতায় ছিল। যে দলটা মাত্র ৪বছর ক্ষমতায় ছিল। ৩১ বছর ক্ষমতার বাহিরে থেকে যে দলটি টিকে আছে। এই দলের কর্মীরা যে ত্যাগী। সেই সব ত্যাগী নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে যে কোনো বিপদ সম্পন্ন রাস্তা পার হয়ে আমরা টার্গেটে পৌছাতে পারবো।
এ সময় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মহাসচিব আলহাজ্ব মোঃ মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য, রংপুর মহানগর সভাপতি ও রংপুর সিটি কর্পোশেনের মেয়র মোঃ মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, মীর আব্দুর সবুর আসুদ, সেলিম উদ্দিন, মেজর (অবঃ) রানা মারুফ সোহেল এমপি, ব্যারিষ্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি, ভাইস চেয়ারম্যান ও রংপুর মহানগর সাধারণ সম্পাদক এস.এম ইয়াসীর, আদেলুর রহমান আদেল এমপি, যূগ্ম মহাসচিব গোলাম মোঃ রাজু, সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, ইকবাল হোসেন তাপস, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও রংপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আব্দুর রাজ্জাক, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য ও রংপুর মহানগর যূগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ লোকমান হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহেদুল ইসলাম, জাতীয় যুব সংহতি রংপুর জেলা সভাপতি হাসানুজ্জামান নাজিম, জেলা জাপার প্রচার সম্পাদক মমিনুল ইসলাম রিপন, জাতীয় ছাত্র সমাজ কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আল মামুন, জাতীয় যুব সংহতি রংপুর মহানগর সভাপতি শাহীন হোসেন জাকির, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি রংপুর মহানগর সভাপতি ফারুক মন্ডল, জাতীয় ছাত্র সমাজ রংপুর মহানগর সভাপতি ইয়াসির আরাফাত আসিফ, জাতীয় শ্রমিক পার্টির রংপুর জেলার সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন তোফা ও জাতীয় অটো শ্রমিক নেতা উচ্ছল, শ্রী শ্যাম বাবুসহ অন্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।###