উৎপাদন সক্ষমতা সত্বেও সামনে বিদ্যুতের সংকট দেখা দিতে পারে-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান

স্টাফ রিপোর্টার:স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, সামনে বিদ্যুত সংকটের কারনে কষ্টের দিন আসতে পারে। সেকারণে মানসিক প্রস্তুতি দরকার। তবে ভয়ের কারণ নেই, সকলের সহযোগিতায় পরিস্থিতি উত্তরন সম্ভব হবে।তিনি বলেন, যথেষ্ট পরিমানে বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা আমাদের আছে। তবে ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে ডিজেল ও ফার্নেস ঘাটতি দেখা দিতে পারে। ফলে দেশে ডিজেল ও ফার্নেস ভিত্তিক পাওয়ার প্লান্টগুলো চালানো সম্ভব নাও হতে পারে। এই কারণে সৃষ্ট বিদ্যুৎ সংকট পরিস্থিতি মাথায় রেখেই এখন থেকেই বিদ্যুত সাশ্রয় মুলক পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। ‘স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী মঙ্গলবার দুপুরে বগুড়ার হোটেল মম ইন এর কনফারেন্স রুমে আয়োজিত এক সুধি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। টিএমএসএসের নির্বাহী পরিচালক ড.হোসনে আরা বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন, জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব হাবিবর রহমান। সমাবেশে বিশেষ অতিথি আরো উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব রেজাউল করিম বাবলু, পুলিশের রাজশাহী বিভাগের ডিআইজি আব্দুল বাতেন বিপিএম,পিপিএম, বগুড়ার জেলা প্রশাসক মোঃ জিয়াউল হক, পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্তী,বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মজিবর রহমান মজনু,সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু।সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আরও বলেন, উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে হবে। ফেসবুকে বিতর্কিত পোস্ট ও গুজব ছড়িয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা থেকে বিরত না হলে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী এ্যাকশানে যাবে। নড়াইলের ঘটনায় সুষ্ঠু পদক্ষেপ নিতে সক্ষম হয়েছি। আমাদের আাইন শৃঙ্খলা বাহিনী এখন যথেষ্ট সক্ষম তাই ষড়যন্ত্র করে কারো পার পাওয়ার সুযোগ নেই। তাই ফেসবুকে পোস্ট দেখে কেউ আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটাবেন না। কাউকে ভাংচুরে সহায়তা করবেননা, কাউকে উৎসাহিত করবেননা। সুধি সমাবেশের পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মম ইন ইকো পার্ক পরিদর্শন করেন এবং টিএমএসএস মেডিকেল কলেজে একটি অক্সিজেন পাওয়ার প্লান্টের উদ্বোধন করেন। এরপর মন্ত্রী বগুড়া সার্কিট হাউসে জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দের সাথে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। পরে তিনি বগুড়া পুলিশ লাইন্সে ’মুক্তির অমর কাব্য ‘ শীর্ষক বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল উদ্বোধন করেন। পরে জেলা পুলিশ আয়োজিত মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধী সুধি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি। স্বাগত রাখেন বগুড়া পুলিশ সুপার সুদীপ চক্রবর্ত্তী ,অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখেন রাজশাহী রেঞ্জ ডিআইজি আব্দুল বাতেন বিপিএম,পিপিএম,বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আলহাজ¦ হাবিবর রহমান এমপি,সাহাদারা মান্নান এমপি,রেজাউল করিম বাবলু এমপি,জেলা প্রশাসক মো: জিয়াউল হক ,জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু,জেলা পরিষদের প্রশাসক ডা: মকবুল হোসেন,জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু,বগুড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহমুদুল আলম নয়ন,অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন পুলিশ লাইন্স স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ শাহাদৎ আলম ঝুনু,বক্তব্য শেষে তিনি মাদক ব্যাবসা ছেড়ে সুপথে ফিরে আসা ৫০ জন পুরুষকে ৫০ টি রিক্সাভ্যান এবং ১৫ জন নারীকে ১৫টি সেলাই মেশিন প্রদান করেন।