বগুড়ার শিবগঞ্জে চোর সন্দেহে অমিত নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা

বগুড়ার শিবগঞ্জে চোর সন্দেহে অমিত নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। বুধবার বেলা আড়াইটার দিকে মরদেহ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
এর আগে উপজেলার ডাকুমারা হাটের ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যালয়ের পাশে মরদেহ দেখতে পান স্থানীয়রা। পরে খবর পেয়ে পুলিশ উপস্থিত হয়।
৩৫ বছরের অমিত গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের চাঁদপাড়া গ্রামের জাফুরুল ইসলামের ছেলে। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে চুরির অভিযোগ রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
এসব তথ্য নিশ্চিত করেন শিবগঞ্জের মোকামতলা তদন্ত ফাঁড়ির এসআই রিপন মিয়া।
তিনি জানান, অমিত চুরির সঙ্গে জড়িত। ডাকুমারা এলাকায় চুরির জন্য এসেছিলেন।
এসআই বলেন, অমিতের দেহে একাধিক মারধরের আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।  এ থেকে ধারনা করা হচ্ছে চুরি করতে গিয়ে ধরা পরার পর তাকে মারধর করা হয়। এতে অমিত মারা যান। পরে তার মরদেহ সুযোগ বুঝে হাটের ভিতরে গলিতে রেখে দেয়া হয়।
রিপন মিয়া আরও বলেন, মরদেহ মর্গে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। আমি এখনও স্পটে রয়েছি। এ ঘটনায় আরও তদন্ত চলছে।
এ বিষয়ে শিবগঞ্জ থানার ওসি দীপক কুমার দাস বলেন, ডাকুমারা হাট এলাকা থেকে একজনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। মৃত্যুর কারণ জানতে পুলিশ কাজ করছে। দ্রুত আসামীদের গ্রেফতার করা হবে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, অমিতের বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ রয়েছে। বছর খানেক আগে এই ডাকুমারা এলাকার রব্বানী (কানা) মনহারি ও সাইকেল গ্যারেজে চুরির ঘটনায় জড়িত ছিল তিনি।