ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতাকর্মীদের রাজপথে সদা প্রস্তুত থাকতে হবে-মজনু

স্টাফ রিপোর্টার:বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মজিবর রহমান মজনু বলেছেন, ঐতিহ্যবাহী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও একইসাথে ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র ও জননেত্রী শেখ হাসিনার পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়ের জন্মদিন। নেতাকর্মীসহ সকলের জন্য আনন্দের দিন আজ। জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সেবা-শান্তি-প্রগতির বীজমন্ত্রে উদ্দীপ্ত হয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা দেশ ও জনগনের কল্যানে কাজ করে যাচ্ছে। করোনা মোকাবেলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ জনগণের পাশে ছিল সবসময়। বঙ্গবন্ধুর নীতি, আদর্শ এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নে স্বেচ্ছাসেবক লীগ আজ শক্তিশালী সংগঠন। সকল লড়াই সংগ্রামে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মীরা ঝাপিয়ে পড়েছে এবং আগামীতেও সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় প্রস্তত থাকতে হবে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশের অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। পাহাড় সমান প্রতিবন্ধকতা ও অসংখ্য চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ। মেগাপ্রকল্প বাস্তবায়নসহ সকল ক্ষেত্রে উন্নয়নের মধ্য দিয়ে দেশ আজ রোল মডেল। আজকের বদলে যাওয়া বাংলাদেশের সফল রূপকার বঙ্গবন্ধুকন্যা। তার সফল নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি আজ বিশ্বসভায় প্রশংসিত। দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি দেখে একটি মহল নানা চক্রান্তে লিপ্ত। তারা মিথ্যাচার করে দেশে বিদেশে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে। এদের ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতাকর্মীদের রাজপথে সদা জাগ্রত থাকতে হবে। তিনি বুধবার বেলা ১২ টায় বগুড়া জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের উদ্যোগে ২৮ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কথাগুলো বলেন। জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি ভিপি সাজেদুর রহমান সাহীনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জুলফিকার রহমান শান্ত’র সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা কৃষকলীগ সভাপতি আলমগীর বাদশা, সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল হক মঞ্জু, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য মেহেদি হাসান রবিন। আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ- সভাপতি আবু জাফর সিদ্দিকী রিপন,এ কে এম এনামুল বারী টুটুল, প্রভাষক মনিরুজ্জামান মনির, গোলাম হোসেন, রুহুল আমিন বাবুল, মোঃ কয়েল ইসলাম, মোহাম্মদ আলী সিদ্দিক, হাজ্বী আলাল, নাইমুর রাজ্জাক তিতাস, নাজমুল কাদির শিপন, নুরুল আমিন শিশির, বনি ছদর খুররম, রেজাউল করিম রিয়াদ, নুরুন্নবী সরকার, আরিফুল হক বাপ্পী, সুলতান মন্ডল সজল, মশিউর রহমান মামুন, খালেকুন্নাহার পলি, রাকিবুল ইসলাম রাজু, আব্দুস সালাম, আমিনুল ইসলাম আকাশ, ওমর ফারুক ঝিনুক,মামুনুর রশিদ মামুন,রাদ সিদ্দিকী রনি,আব্দুল ওয়াদুদ পাপ্পু,রশ্মি স্বর্না, নাসিমুল বারী নাসিম, লিটন শেখ, আতাউর রহমান আতা,মোঃ মশিউর রহমান,সোহানুল ইসলাম, আব্দুল হাকিম, মোঃ বিজয় শেখ, মোঃ সজল,মিলন সহ জেলা ও পৌর শাখার নেতৃবৃন্দ। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে দিনব্যাপি কর্মসূচির মধ্য ছিল সকালে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন, দুপুর ২ টায় দুস্থ মানুষের মাঝে খাদ্য বিতরন, বিকেল ৩ টায় মরহুম মমতাজ উদ্দিনের কবর জিয়ারত, সন্ধ্যা ৭ টায় সজীব ওয়াজেদের ৫২ তম জন্মদিন উপলক্ষে দলীয় কার্যালয়ে কেক কর্তন ও রাত ৮ টায় সাতমাথা চত্তরে বর্নিল আতশবাজি মধ্যে দিয়ে কর্মসূচী সমাপ্ত করা হয়।