গাবতলীতে অধ্যক্ষকে মারপিট ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় দোষীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন

গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়া গাবতলীর লাঠিগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) রুস্তম আলীকে এলাকার সন্ত্রাসী কর্তৃক মারপিট ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় দোষীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন করা হয়েছে। অত্র স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক, কর্মচারী, ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকবৃন্দের ব্যানারে শনিবার কলেজ মাঠে এই মানববন্ধন করা হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন লাঠিগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজের এডহক কমিটির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোমিনুল হক শিলু, কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) রুস্তম আলী, এডহক কমিটির সদস্য মতিউর রহমান মিলন, শিক্ষার্থী রুমান ও ফারজানা প্রমুখ। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, শিক্ষক হলো মানুষ গড়ার কারিগর। এই কারিগরদের মারপিট ও কলেজের উন্নয়নের টাকা ছিনতাই এটা কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। তাই দ্রুত তদন্তপূর্বক চিহিৃত এই সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবী জানান বক্তারা। মানববন্ধনে অভিভাবক সদস্য ও ছাত্রছাত্রীরা অংশ গ্রহণ করলেও প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা অংশ গ্রহণ করেননি। এ ব্যাপারে কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) রুস্তম আলী স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, ওই হামলাকারী সন্ত্রাসীরা শিক্ষকদের বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। মূলত সেকারণেই শিক্ষকরা ভয়ে মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করতে পারেনি। এলাকায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে মানববন্ধনস্থলে থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, ওসি তদন্ত জামিরুল ইসলামসহ সঙ্গীয় ফোর্স উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য যে, গত ২৫জুলাই সকাল পৌনে ১০টায় গাবতলীর লাঠিগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) রুস্তম আলী বাড়ী থেকে বের হয়ে কলেজে যাওয়ার পথে নামাদাঁড়াইল পৌঁছিলে ওই এলাকার নজরুল ইসলাম খান, এনামুল হক, আব্দুর রাজ্জাকসহ বেশ কিছু লোকজন তার পথরোধ করে মারপিট ও কলেজের উন্নয়ন কাজের ১লাখ ৮০হাজার টাকা ছিনতাই করে। এ ঘটনায় রুস্তম আলী বাদী হয়ে গত ২৭জুলাই বগুড়ার গাবতলী থানা আমলী আদালতে নজরুল ইসলাম খানকে প্রধান অভিযুক্ত করে ৭জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্তরা বাদীর নিকট আগে থেকেই ২লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে আসছিল বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ