নেপথ্যে কোটি টাকার নিয়োগ বগুড়ার ফয়েজুল্লাহ স্কুলে অবৈধভাবে পরিচালনা কমিটি গঠনের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার:বগুড়ার লতিফপুর কলোনি এলাকায় ফয়েজুল্লাহ স্কুলের পরিচালনা কমিটি গঠনে অবৈধ প্রক্রিয়া অনুসরণের অভিযোগ উঠেছে।অভিযোগে বলা হয়েছে, খুব শীঘ্রই এই ঐতিহ্যবাহী স্কুলে কয়েকটি নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।ওই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় প্রায় কোটি টাকার ওপরে নিয়োগের সুযোগ থাকায় স্কুলের প্রধাণ শিক্ষকের সহায়তায় কোন রকম আইনী প্রক্রীয়া অনুসরণ না করেই শিক্ষা বোর্ড রাজশাহীতে একটি কমিটি অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে। গত ২৮ জুলাই পাঠানো এই কমিটির সভাপতি হিসেবে নাম রয়েছে আওয়ামী লীগ নেতা মাহিদুল ইসলামের।শনিবার দুপুরে স্কুল মহল্লার আশেপাশের লোকজন এবং অভিভাবক সদস্যরা বগুড়া প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। এলাকাবাসী এবং অভিভাবক পক্ষে মোঃ আতিকুল ইসলাম একজন লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন। অভিযোগে বলা হয় কাউকে না জানিয়ে স্কুলের শ্রেনীকক্ষে বা নোটিশ ভোটার তালিকা না টাঙিয়ে প্রধাণ শিক্ষক গোপনে ২৮-০৭-২২ তারিখে আওয়ামী লীগ নেতা মহিদুলকে সভাপতি করার প্রস্তাব রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠিয়েছেন।অথচ এই প্রক্রীয়া না করার একাধিকবার তাকে লিখিতভাবে আবেদন ও সতর্ক করা হয় বলে জানিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আরিফুল ইসলাম নামের একজন অভিভাবক সদস্য।অভিযুক্ত মহিদুল ইসলামকে এব্যাপারে প্রশ্ন করলে মোবাইল ফোনে তিনি বলেন, তিনি পরে কথা বলবেন। স্কুল সংশ্লিষ্ট কয়েকজন এলাবাসী বলেন, স্কুলে সামনে কয়েকটি নিয়োগ আছে। ওই নিয়োগে কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার মিশন থেকেই মুলত দ্বন্দ্বের সৃষ্টি। শুরুতেই এব্যাপরে হস্তক্ষেপ না করলে এই বিরোধিতা মারাত্মক কেলেংকারী ঘটে যেতে পারে।