হিরো আলমের বিরুদ্ধে সাংবাদিকের জিডি

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি : ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) জিজ্ঞাবাসাদের পরপরই ফের নেটিজনদের আলোচনায় হিরো আলম বনে যাওয়া বগুড়ার আশরাফুল আলম সাঈদ। ডিবি অফিস থেকে ছেড়ে দেওয়ার আগে তাকে মানসিকভাবে নির্যাতন করা হয় বলে অভিযোগ হিরো আলমের।
এদিকে সংবাদ প্রকাশের জের ধরে এক সাংবাদিককে হুমকির ঘটনায় হিরো আলমের বিরুদ্ধে গত শনিবার রাতে বগুড়ার নন্দীগ্রাম থানায় সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করা হয়েছে। জিডি নং ১২৯২। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচিত ও সমালোচিত হিরো আলমের বিরুদ্ধে জিডি করেছেন দৈনিক সময়ের কাগজের জেলা প্রতিনিধি এমদাদুল হক।
সুত্রমতে, কয়েকজনের অভিযোগের ভিত্তিতে হিরো আলমকে গত বুধবার জিজ্ঞাবাসাদ করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। ভবিষ্যতে রবীন্দ্র ও নজরুল সঙ্গীত না গাওয়াসহ বিতর্কিত কর্মকান্ড না করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ডিবির সাইবার ইউনিটের কাছে মুচলেকা দিয়েছেন হিরো আলম। ডিবি অফিস থেকে ফিরেই সংবাদ প্রকাশের জের ধরে এক সাংবাদিককে মুঠোফোনে হুমকি দিয়েছেন তিনি। সেই ফোন রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এছাড়া প্রতিদিনই হিরো আলমকে বিভিন্ন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ডিবি পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে মন্তব্য করতে দেখা যাচ্ছে।
জিডিতে ওই সাংবাদিক উল্লেখ করেন, সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিককে মোবাইলে কল করে অকথ্যভাষায় গালিগালাজ করাসহ দেখে নেওয়ার হুমকি দেন হিরো আলম। সংবাদ ডিলিট না করলে মামলা করবেন বলেও সাংবাদিক এমদাদুলকে ভয়ভীতি দেখান।
যোগাযোগ করা হলে মুঠোফোনে হিরো আলম বলেন, ওই সাংবাদিক আমার বিরুদ্ধে সংবাদ লিখেছে, তাকে সংবাদ ডিলিট করতে বলেছি। বলেছি, চামচামি না করতে।
এ প্রসঙ্গে নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, সংবাদ প্রকাশের জেরেই সাংবাদিককে হুমকি দিয়েছে হিরো আলম। ফোন রেকর্ড শুনেছি। এবিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।