পৃথক ঘটনায় ঝিনাইদহে নিহত দুই

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-সড়ক দুর্ঘনায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও আলমসাধু ড্রাইভার হোসেন আলী পিন্টুর (২৫) মৃত্যু হয়েছে। সে কোটচাঁদপুর উপজেলার ফুলবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা। বুধবার ভোর রাতে কুষ্টিয়া লক্ষিপুর নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মৃতের ভাই আবুল কালাম জানান, বুধবার মহেশপুরে ভৈরবা থেকে আলমসাধুতে কাঠ বোঝাই করে কুষ্টিয়ায় যায়। ওই কাঠ নামিয়ে বাড়ি ফেরার পথে কুষ্টিয়ার লক্ষিপুর নামক স্থানে আলমসাধু নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের উপর পড়ে যায় হোসেন আলী পিন্টু। এবং ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে ভাদালিয়া পুলিশ ফাঁড়ি তাকে উদ্ধার করেন। হোসেন আলী পিন্টু ফুলবাড়ি দক্ষিণ পাড়ার মুক্তি যোদ্ধা মৃত আবু তাহেরের ছেলে। পারিবারিক জীবনে সে এক কণ্যা সন্তানের জনক। এছাড়া হোসেন আলী বলুহর ২ নম্বর ওয়ার্ড স্বেচ্ছা-সেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। এ ব্যাপারে কোটচাঁদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মঈন উদ্দিন জানান, কুষ্টিয়া মারা গেলে। সেটা কুষ্টিয়া পুলিশের ব্যাপার। সেটা আমাদের বলার কিছু নাই। এদিকে ঝিনাইদহে গাছ চাপায় আকুল মন্ডল(৪৫) নামে এক শ্রমিক নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে শৈলকূপা উপজেলার কুলচারা নতুন পাড়া এস-৬ এ ক্যানালে এঘটনা ঘটে। নিহত শ্রমিক সদর উপজেলার পোড়াহাটি ইউনিয়নের বাসুদেবপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলী মন্ডলের ছেলে। নিহত শ্রমিকের ভাই পিকুল মন্ডল জানান, সকাল ৮টার দিকে আকুল মন্ডল, একই গ্রামের মোকাদ্দেস মন্ডল ও বড় কুলচারা গ্রামের নজরুল ইসলামকে একদিন ৬শত টাকা করে হাজিরা ঠিক করে নিয়ে আসেন আমতলা মকিমপুরের রব্বানী মোল্লার ছেলে কাঠ ব্যবসায়ী নান্নু মোল্লা। এরপর ঘটনাস্থলে গিয়ে তারা গাছ মারতে শুরু করে। গাছ কাটা শেষ পর্যায়ে আকুল গাছে উঠে দড়ি বাঁধতে যায়। সেসময় কাটা গাছ ভেঙ্গে নিচে চাপা পড়ে মারাত্বক আহত হয় আকুল। সাথে থাকা শ্রমিকেরা উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। শৈলকূপা থানার ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, কেউ যদি অভিযোগ দেয় তাহলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।