প্রেম করে বিয়ের এক বছর পর শৈলকুপায় বিষপানে হিন্দু ধর্মের স্বামী-স্ত্রীর আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-প্রেম করে বিয়ে করার ১ বছর পর ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সাংসারিক কলহের জেরে সুদীপ্ত ও স্বর্ণা নামে হিন্দু ধর্মের স্বামী-স্ত্রীর একসঙ্গে বিষপানে মারা গেছে বলে জানা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার নিত্যানন্দনপুর ইউনিয়নের খালফলিয়া গ্রামে। এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে উপজেলার খালফলিয়া গ্রামের সুব্রত কুমারের ছেলে সুদিপ্ত কুমার (২২) একই গ্রামের রবি কুমারের মেয়ে স্বর্ণার (১৭) সাথে প্রেমকরে বিয়ে করে দুই জন। পারিবারিক অশান্তির কারণে বিয়ের ১ বছর পর গত ৩১ জুলাই রাতে বিষপানের পরে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তারা। পরিবারের লোকজন তাদের উদ্ধার করে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে দায়িত্ব রত চিকিৎসক ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে। এদিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২ আগস্ট স্বামী সুদীপ্ত ও ৩ আগস্ট স্ত্রী স্বর্ণা বিশ্বাস মারা যায়। এ ব্যাপারে প্রতিবেশি সোহাগ বিশ্বাস জানান তাদের বাড়িতে পারিবারিক ভাবে বিয়ের কিছু দিন পর থেকে অশান্তি বিরাজ করছিল তার জের ধরে তারা বিষ খাওয়ার পর দুজনেই গলায় দড়ি দিয়ে আত্বহত্যার চেষ্টা করে। পরে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যায়।এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানায় অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম বলেন বিষ খেয়ে স্বামী স্ত্রী চিকিৎসাধীনঅবস্থায় মারা গেছে। শৈলকূপা থানায় পৃথক ভাবে দুইটি ইউডি মামলা হয়েছে।

 

সর্বশেষ সংবাদ