বগুড়ায় সাদা পোশাকে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে জনতার হাতে এস আই আটক

স্টাফ রিপোর্টার:-বগুড়ায় শহরতলীর নাটাইপাড়া বৌবাজার এলাকায় শুক্রবার দুপুরে এক নাপিতের বাসায় গিয়ে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে জনতার হাতে আটক হয়েছে সোর্স সহ এক এস আই। পরে খবর পেয়ে ৯৯৯ এর উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বগুড়া সদর থানার এস আই মাসুদ রানা ও পুলিশের সোর্স ইকবালকে উদ্ধার করেছে। মাসুদ রানাকে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ লাইন্সে ক্লোজ করা হয়েছে। অপরদিকে পুলিশের সোর্স ইকবালকে গ্রেফতার করে থানা হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে ।ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগি তরুন চন্দ্র শিলের স্ত্রী সুবর্না রানী শিল জানান, শুক্রবার বেলা দেড়টায় বগুড়া সদর থানার এসআই পরিচয় দিয়ে সাদা পোশাকে এক ব্যাক্তি সোর্স ইকবাল সহ তাদের বাসায় আসে। তারা তার স্বামী তরুণ চন্দ্র শিলের কাছে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। তার স্বামী পেশায় একজন নাপিত হওয়ায় এত টাকা চাঁদা দাবির কারনে রীতিমতো হকচকিয়ে যান।চাঁদা দিতে অপারগতায় এস আই মাসুদ রানা ও পুলিশের সোর্স ইকবাল তরুনকে মারধর করতে শুরু করে। বাধা দিতে গেলে তরুনের স্ত্রী, শাশুড়ীকে ও নাজেহাল করে বলা হয়, চাঁদা না দিলে গাঁজা সহ চালান করা হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়। এসময় হট্টগোলের কারনে আশেপাশের লোকজন তরুন শিলের বাড়িতে ভীড় জমায়। একপর্যায়ে তারা উত্তেজিত হয়ে মাসুদ রানা ও ইকবালকে আটক করে ঘটনা জানিয়ে জরুরি পরিসেবা ৯৯৯ এ ফোন করে। ফোন পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে এস আই মাসুদ রানা ও সোর্স ইকবালকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এই ঘটনায় এলাকাবাসী পুলিশ সুপার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে বগুড়া পুলিশের দায়িত্ব প্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সরাফত ইসলাম জানান,এস আই মাসুদ রানাকে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ লাইন্সে ক্লোজ এবং সোর্স পরিচয়দানকারি ইকবালকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শেষে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

সর্বশেষ সংবাদ