ফার্মেসি বন্ধের কোনো নির্দেশনা দেয়া হয়নি:-স্বাস্থ্যমন্ত্রী

মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ওষুধের দোকান (ফার্মেসি) বন্ধের কোনো নির্দেশনা দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, ওষুধের দোকান ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকা উচিত। বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) দুপুরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে দেশের হাসপাতালের সেবা কার্যক্রম সংক্রান্ত সভা শেষে এ সব কথা বলেন তিনি। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘স্বাস্থ্যসেবা হচ্ছে জরুরি সেবা। আমরা কোনো হাসপাতালের সময়সীমা কমায়নি। আমরা ২৪ ঘণ্টা সেবা বজায় রেখেছি। শুধু অফিস সময় ৮টা থেকে ৩টা করেছি। তাছাড়া সব হাসপাতাল তার নিজস্ব গতিতে চলবে। সেখানে সময় অপরিবর্তিত থাকবে।’ জাহিদ মালেক আরও বলেন, ‘ওষুধের দোকান বন্ধের কোনো নির্দেশনা আমরা দেইনি। ওষুধ একটি জরুরি প্রয়োজনীয় দ্রুব্য। জরুরি সেবা দেয়া প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয় না। ফার্মেসি কিন্তু ২৪ ঘণ্টাই খোলা থাকে।’ তিনি বলেন, ‘সিটি করপোরেশন ওষুধের দোকান রাত ১২টার পর বন্ধ রাখার বিষয়ে বলে থাকলে তাদের সঙ্গে আলোচনা করে একটা সুরাহা আমরা করব। আমি মনে করি, এটা ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকা উচিত। আমরা আলোচনা করে খোলা রাখার ব্যবস্থা নেব।’ স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে মেডিকেল শিক্ষা ও সেবার মান নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। মেডিকেল কলেজ শিক্ষা কার্যক্রম আন্তর্জাতিক মানের করা হচ্ছে। নতুন সাবজেক্ট হিসেবে যোগ করা হয়েছে, রোগীর সঙ্গে কীভাবে ভালো ব্যবহার করা হবে, উন্নত চিকিৎসা দেয়া যায়, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার বিষয় যোগ করা হয়েছে। শিক্ষকের হার অনেক কম। অন্যদের তুলনায় অধ্যাপক অর্ধেক। এটা পূরণ করার চেষ্টা করা হচ্ছে। তিনি বলেন, করোনা বুঝিয়েছে স্বাস্থ্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ। চিকিৎসক সেবার মান বৃদ্ধিতে মেডিকেল কলেজে শিক্ষার্থীদের আসন সংখ্যা বাড়ানো হবে সরকারি ও বেসরকারি কলেজে। একই সাথে রিসার্চের ওপর গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। ১০০ কোটি টাকা বাজেটে ধরা হয়েছে। শিশুদের টিকা বিষয়ে জাহিদ মালেক বলেন, ৫ থেকে ১১ বছর বয়সীদের ১৮৬টি কেন্দ্রে টিকা দেয়া হচ্ছে। গ্রামে পার্যায়ে এ টিকা শুরু হবে। এ সময়ে স্বাস্থ্য ও শিক্ষার সচিব এবং অন্যান্য মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষরা উপস্থিত ছিলেন।