নগদকে লাইসেন্স দিল বাংলাদেশ ব্যাংক

ডাক বিভাগের ডিজিটাল লেনদেনের (মোবাইল ব্যাংকিং) সহযোগী প্রতিষ্ঠান ‘নগদ’কে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য এলওআই (লেটার অব ইন্টেন্ট) লাইসেন্স দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ মঙ্গলবার বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়। এ নিয়ে দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা বেড়ে ৩৫টিতে দাঁড়ালো। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। সূত্র জানিয়েছে, কিছু শর্তসাপেক্ষে এ অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার। এতে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি গভর্নর, নির্বাহী পরিচালক ও সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তারা। এ বিষয়ে নগদ লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর এ মিশুক যুগান্তরকে বলেন, আমাদের পরিকল্পনা অনুসারে চূড়ান্ত অনুমোদনের পর নগদ ফাইন্যান্স পিএলসি স্বতন্ত্র আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচালিত হবে। তবে ডাক বিভাগের সঙ্গে মোবাইল আর্থিক সেবা প্রতিষ্ঠান নগদ লিমিটেডের বিদ্যমান সম্পর্ক অপরিবর্তিত থাকবে। অর্থাৎ নগদ লিমিটেড ডাক বিভাগের সেবা হিসেবেই পরিচালিত হবে। সেক্ষেত্রে নগদ ফাইন্যান্স পিএলসি অন্য আর দশটি ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিচালিত হবে। তানভীর এ মিশুক আরও বলেন, একটি মোবাইল আর্থিক সেবা হিসেবে নগদ লিমিটেড এখন অসংখ্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে কাজ করে। এক্ষেত্রে নগদ ফাইন্যান্স পিএলসি এবং নগদ লিমিটেডের সম্পর্কও একই রকম হবে। তখন নগদ ফাইন্যান্স পিএলসি বিভিন্ন প্রডাক্ট নগদ লিমিটেডের মাধ্যমে বিপনন করা হবে। ডিজিটাল আর্থিক অন্তর্ভূক্তির বাইরে থাকা প্রান্তিক মানুষকে সেবার কলেরবরের মধ্যে আনতে ফাইন্যান্স পিএলসি এবং নগদ লিমিটড যৌথভাবে কাজ করতে পারবে। তাতে সেবার খরচও কমবে এবং সেবার গুণগত মানও আগের চেয়ে ভালো হবে।