ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে শিক্ষকের আত্মহত্যা,ছাত্রী আটক

নরসিংদীতে ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে এক কলেজ শিক্ষকের আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এক ছাত্রীকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে জেলার হাজিপুরে নিজ ঘর থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। মৃত শিক্ষকের নাম আব্দুল্লাহ আলী। তিনি নরসিংদী মডেল কলেজের রসায়ন বিভাগের প্রভাষক ও হাজিপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা ছিলেন। তার চার বছর বয়সী একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। এ আত্মহত্যার ঘটনায় প্ররোচনার অভিযোগে একই কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের এক ছাত্রীকে আটক করেছে পুলিশ। আত্মহত্যার প্রায় ১৪ ঘণ্টা আগে ওই শিক্ষক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ‘আই এম ডেস্ট্রয়িং মাইসেল্ফ’ লিখে একটি পোস্ট করেন। জানা গেছে, মৃত আব্দুল্লাহ আলী কয়েক মাস আগে থেকে নরসিংদী মডেল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীকে প্রাইভেট পড়াতেন। সেখান থেকে প্রথমে পরিচয় পরে পরিণয়। তারপর ছাত্রীর সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন ওই শিক্ষক। এক পর্যায়ে ওই শিক্ষার্থী তাকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকে। এই নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে এই চাপ সামলাতে না পেরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ‘আই এম ডেস্ট্রয়িং মাইসেল্ফ’ লিখে একটি পোস্টও করেন। পরে নিজের কক্ষের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ করে তিনি আত্মহত্যা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ রাত ১১টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে। নরসিংদী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ তালুকদার বলেন, এক ছাত্রীকে থানায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এখনো লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি।