শাজাহানপুরে কৃষিজমিতে মাটিদস্যুদের ভয়াল থাবা

সজিবুল আলম সজিব শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি:বগুড়ার শাজাহানপুরে মাটি দস্যুদের ভয়াল থাবা এবার তিন ফসলি কৃষি জমির উপরে। কৃষি জমির টপসয়েল থেকে শুরু করে পুকুর, পুকুর থেকে সাগরে পরিণত করছে মাটি দস্যূরা। এর ফলে একদিকে যেমন কৃষি জমি হুমকীর মুখে পড়েছে অন্যদিকে মাটিবাহী ট্রাক চলাচলে সরকারের কোটি কোটি টাকার রাস্তার ব্যাপক ক্ষতিসাধন হচ্ছে। প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েও কোন প্রতিকার পাচ্ছে না ভুক্তভোগীরা।
জানা গেছে, উপজেলার খোট্রাপাড়া ইউনিয়নের ঘাষিড়া, খলিশাকান্দি ও আশেকপুর ইউনিয়নের পারতেখুর গ্রামে এসকেভেটর মেশিন দিয়ে কৃষি জমিতে পুকুর খনন করা হচ্ছে। ঘাষিড়া ও খলিশাকান্দি গ্রামে প্রায় ১০০বিঘা কৃষি জমি ৩০/৩৫ফুট গভীর গর্ত করে মাটি দস্যুদের ভয়াল থাবায় সাগরে পরিণত হয়েছে। আশেকপুর ইউনিয়নের পারতেখুর গ্রামে ফসলি জমির মাঠের মধ্যে ১৪ বিঘা কৃষি জমিতে পুকুর খনন কাজ চলছে। এছাড়াও আড়িয়া ইউনিয়নের বামুনিয়া ও মাঝিড়া ইউনিয়নের সাজাপুর পদ্দপুকুরে পুকুর খনন চলছে। মাটিবাহী ট্রাক চলাচলে সরকারের কোটি কোটি টাকার রাস্তার কাপেটিং ওঠে চৌচির হয়ে যাচ্ছে। ট্রাকের হাইড্রোলিক হর্ণের শব্দে স্থানীয় এলাকাবাসীর রাতের ঘুম হারাম হয়ে গেছে। রাস্তার ধুলা-বালিতে জনগণের দুর্ভোগ চরমে উঠেছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদা খানমের সঙ্গে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিফ করেননি। জেলা প্রশাসক মো: জিয়াউল হক জানান, কৃষিজমি থেকে মাটি কাটার কোন সুযোগ নেই। দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।