সার্টিফিকেট পুড়িয়ে নয় দক্ষতার মাধ্যমে জয় করতে হবে বেকারত্বকে-প্রতিমন্ত্রী পলক

সঞ্জু রায়, বগুড়াঃ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, ১৬৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৪ একর জায়গায় বগুড়ায় নির্মিত হতে যাচ্ছে শেখ কামাল আইটি ইনকিউবেশন সেন্টার যার কাজ আগামী অর্থবছরেই শুরু হবে। শুধু তাই নয় এর পাশেই হাইটেক পার্ক এবং ১০০ একর জায়গায় নির্মাণ করা হবে ২য় বিসিক শিল্পনগরী। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং পাশাপাশি আইসিটির এই প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নের মাধ্যমে বগুড়া গড়ে উঠবে স্মার্ট নগরী হিসেবে।
শনিবার দুপুরে বগুড়ার শহীদ টিটু মিলনায়তনে স্মার্ট কর্মসংস্থান মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে  প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা জানান তিনি। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সহযোগিতায় বগুড়া জেলা প্রশাসন স্মার্ট কর্মসংস্থান মেলার আয়োজন করে।
অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক আরো বলেন, বগুড়ায় আইটি ইন্সটিটিউটসহ প্রতিটি উপজেলায় “জয় সেট সেন্টার” স্থাপন করে ছাত্র-ছাত্রীদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে। এর মাধ্যমে দেশে বেকার সমস্য সমাধান, উদ্ভাবন এবং তথ্যপ্রযুক্তিতে যুব সমাজকে এগিয়ে নেয়া সম্ভব হবে। আইসিটি বিভাগের পক্ষ থেকে চাকরিগ্রহিতা, প্রার্থী ও চাকরি দাতাদের মধ্যে সেতুবন্ধনের কাজ করছেন তারা। আগামী অর্থবছরেই দেশে চারটি ক্যাটাগরিতে এক লাখ হাইরেটেড কর্মী গড়ে তোলার লক্ষ্যে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। এর মধ্যে বগুড়াতেই গড়ে তোলা হবে এক হাজার হাইরেটেড কর্মী।
বগুড়া জেলা প্রশাসক সাইফুল ইসলামের সভাপতিতে স্মার্ট কর্মসংস্থান মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বগুড়া সদর আসনের সংসদ সদস্য রাগেবুল আহসান রিপু। অনুষ্ঠানে উদ্যোক্তা তৈরিতে আগ্রহ বাড়াতে ৩২ জন নারীকে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদান এবং ১০ জনকে ল্যাপটপ প্রদান করেন প্রতিমন্ত্রী পলক। এছাড়াও আগামী ২ মাসের মধ্যে বগুড়ার আরো ৫০ জন উদ্যোক্তাকে আর্থিক অনুদান এবং ৬ মাসের মধ্যে ৫ শতাধিক উদ্যোক্তাকে প্রশিক্ষণ প্রদানের ঘোষণা দেন পলক। মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বগুড়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজাউল করিম তানসেন, জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বিপিএম পিপিএম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু, মাসুদুর রহমান মিলন সিআইপি প্রমুখ।
একই দিন সকালে বগুড়া নন্দীগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সভায় অংশ নেন প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন রানার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ৫ শতাধিক কর্মীর ঐক্যবদ্ধ কণ্ঠে ¯েøাগান মাস্টারের ভূমিকা পালন করে পলক। নৌকার জয়গানে মুখরিত করে তোলেন পুরো নন্দীগ্রাম। এছাড়াও নন্দীগ্রাম উপজেলা পরিষদে ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করেন জয় সেট সেন্টারের এবং আইসিটি খাতে নন্দীগ্রামে আইডল উপজেলা করতে প্রয়োজনীয় সকল পদক্ষেপ নেয়ার ঘোষণা দেন তিনি। তিনি বলেন সারাদেশে ৫৫৫টি জয় সেট সেন্টার নির্মাণ করা হবে যার মাধ্যমে এক স্থান থেকেই মানুষ সকল সেবা পাবে। এছাড়াও ৪র্থ শিল্প বিপ্লবের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে সকলকে দক্ষ করে তোলা হবে এই সেন্টারের মাধ্যমে। অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, একটি গোষ্ঠী সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে ক্ষমতায় আসতে চাই কিন্তু এদেশের জনগণ আর আগুন সন্ত্রাসীদের ক্ষমতায় দেখতে চাইনা। বর্তমান সরকার বগুড়ার যে উন্নয়ন করেছে বিগত ৪০ বছরে কোন সরকার তা করেনি। আওয়ামী লীগ আছে বলেই দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে সমৃদ্ধির পথে। কাগজবিহীন সম্পূর্ণ স্মার্ট পদ্ধতিতে দেশের জনগণ আজ সেবা পেতে শুরু করেছে যে ধারাবাহিকতায় আগামী কয়েক মাসের মধ্যে বগুড়াতে আইসিটি খাতে দৃশ্যমান ইতিবাচক পরিবর্তন আনয়নে কাজ শুরু করেছে আইসিটি বিভাগ যার মাধ্যমে উত্তরবঙ্গের মাঝে বগুড়া হবে স্মার্ট ও সমৃদ্ধ জেলা যেখানে পিছিয়ে থাকবে না কেউ।